বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্যানুযায়ী, সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ১ হাজার ৮৫৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। করোনা শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে নগরের ৭৪ জন আর নগরের বাইরের বিভিন্ন উপজেলার ৮ জন।

আগের দিন চট্টগ্রামে নতুন করে ৫৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল, শনাক্তের হার ছিল ৩।

চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়ে ১ হাজার ৩৩৩ জন মারা যান। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ১ লাখ ২ হাজার ৯০৪ জন।

২০২০ সালের ৩ এপ্রিল চট্টগ্রামে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। একই বছরের ৯ এপ্রিল চট্টগ্রামে করোনায় সংক্রমিত হয়ে প্রথম কোনো ব্যক্তি মারা যান।

দেশে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি দ্রুত অবনতির দিকে যাচ্ছে। জাতীয়ভাবে নমুনা পরীক্ষা, শনাক্ত রোগীর সংখ্যা, নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার—সবই বাড়ছে।

এটা করোনার নতুন ধরনের কারণে নাকি অন্য কারণ আছে, তা এখনো স্পষ্টভাবে জানা যাচ্ছে না। তবে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) বলছে, সংক্রমণ আরও বাড়বে।

দেশে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ১৪০ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ছিল প্রায় ৫। প্রায় ১০০ দিন পর এত বেশিসংখ্যক রোগী এক দিনে শনাক্ত হতে দেখা গেল।

এমন পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের স্কুলে যেতে হলে কমপক্ষে এক ডোজ করোনার টিকা দেওয়া থাকতে হবে। সরকারের এই সিদ্ধান্তে অনেক শিক্ষার্থী স্কুলে যাবে না। কারণ, দেশের অধিকাংশ শিক্ষার্থী এখনো এক ডোজ টিকা পায়নি।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন