default-image

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনার টিকা দেওয়ার প্রস্তুতি ‘এ’ মানের। কাল দেশের ১ হাজার ৫টি হাসপাতালে করোনার টিকা দেওয়া হবে। আজ শনিবার দুপুর পর্যন্ত ৩ লাখ ২৮ হাজার মানুষ টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন। আজ পর্যন্ত সুরক্ষা অ্যাপ চালু হয়নি।
আজ শনিবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে আয়োজিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানানো হয়। প্রস্তুতি সম্পর্কে জানতে চাইলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, টিকা দেওয়ার প্রস্তুতি ‘এ’ মানের। ১০০–এর মধ্যে ৭৫ নম্বর পেলে এ মানের হয়।

আগামীকাল সারা দেশে টিকা কর্মসূচির সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে গণমাধ্যমকে জানানোর জন্য এ ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয়। এতে অধিদপ্তরের দুজন অতিরিক্ত মহাপরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

মহাপরিচালক বলেন, ঢাকা শহরে ৫০ টি হাসপাতালে ও ঢাকার বাইরে সারা দেশে ৯৫৫টি হাসপাতালে কাল টিকা দেওয়া হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী কাল সকাল ১০টায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন।

প্রথম পর্যায়ে ৩৫ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। এ পর্যন্ত মাত্র ৩ লাখ ২৮ হাজার মানুষ নিবন্ধন করেছেন। নিবন্ধনের হার কম। তা ছাড়া নিবন্ধন অ্যাপও চালু হয়নি। এ পর্যন্ত যাঁরা নিবন্ধন করেছেন, তাঁদের অনেকেই জানেন না কবে তাঁরা টিকা নিতে পারবেন। টিকা নেওয়ার ব্যাপারে প্রচার–প্রচারণাও কম বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন