default-image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে চলাচলকারী পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন। তবে অভ্যন্তরীণ নৌপথে যাত্রী পরিবহনে নিয়োজিত নৌযান চলাচল করবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রী পরিবহনের জন্য নৌযানগুলোকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অনুসারে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এ নৌপথে চলাচলকারী সব পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকবে। আজ বুধবার রাতে প্রথম আলোকে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পারভেজ চৌধুরী। তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ নৌপথে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত যাত্রীবাহী জাহাজ চলাচলের অনুমতি ছিল।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) সূত্র জানায়, গত বছরের ১২ নভেম্বর থেকে এ নৌপথে পর্যটক পরিবহনের জন্য বিভিন্ন মেয়াদে আটটি জাহাজকে অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল। জাহাজগুলো হলো গ্রিন লাইন-১, বে ক্রুজ, এমভি পারিজাত, এমভি আটলান্টিক ক্রুজ, এমভি ফারহান-১, কেয়ারি সিন্দাবাদ, কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইন ও এমভি শহীদ সালাম।

কেয়ারি সিন্দাবাদ ও কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইনের টেকনাফের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ শাহ আলম এবং এমভি শহীদ সালামের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ রাসেল জানান, জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বৃহস্পতিবার থেকে সেন্ট মার্টিন নৌপথে সব পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকবে। আজ বেড়াতে যাওয়া অধিকাংশ পর্যটককে সেন্ট মার্টিন থেকে ফেরত আনা হয়েছে।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন