করোনা বাংলাদেশ

করোনাভাইরাস

দেশে ৪৬ দিনের মধ্যে সবচেয়ে কম মৃত্যু, শনাক্ত ১৬১৫

বিজ্ঞাপন
default-image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় (আজ বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) নতুন করে আরও ১ হাজার ৬১৫  জন করোনাভাইরাসে (কোভিড ১৯) আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ সময়ে মারা গেছেন ২১ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ বুধবার এই তথ্য জানানো হয়। গত ৪৬ দিনের মধ্যে এটা একদিনে সবচেয়ে কম মৃত্যুর সংখ্যা। এর আগে ২ আগস্ট ২৪ ঘণ্টায় ২১ জনের মৃত্যুর তথ্য জানানো হয়েছিল।


এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩ লাখ ৪২ হাজার ৬৭১ জন। এ পর্যন্ত দেশে মোট ৪ হাজার ৮২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৪৭  হাজার ৯৬৯  জন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ৩৬০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। শনাক্তের হার ১২ দশমিক ০৯ শতাংশ। আগের দিন এই হার ছিল ১২ দশমিক ২৭ শতাংশ।
আগের দিনের তুলনায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। আগের দিন ৪৩ জনের মৃত্যুর তথ্য ছিল। মৃত্যুর সংখ্যা বাড়লেও গত ২৪ ঘণ্টায় আগের দিনের তুলনায় নতুন রোগী শনাক্তের সংখ্যা ও হার সামান্য কমেছে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩ লাখ ৪২ হাজার ৬৭১ জন। এ পর্যন্ত দেশে মোট ৪ হাজার ৮২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৪৭ হাজার ৯৬৯ জন।
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্তের খবর জানানো হয়। এর ১০ দিনের মাথায় ১৮ মার্চ করোনায় দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে সরকার। এখন দেশে সংক্রমণের সপ্তম মাস চলছে। শুরুর দিকে সংক্রমণ ধীর থাকলেও মে মাসের মাঝামাঝি থেকে পরিস্থিতি খারাপ হতে শুরু করে। জুনে তা তীব্র আকার নেয়। জুলাইয়ের শুরু থেকে নতুন রোগী শনাক্তের সংখ্যা কমতে থাকে। এ সময় পরীক্ষাও কম হয়। অবশ্য গত আগস্ট মাস থেকে নতুন রোগী শনাক্তের সংখ্যার পাশাপাশি পরীক্ষার তুলনায় সংক্রমণ শনাক্তের হারও কমতে দেখা গেছে। তবে মৃত্যু সেভাবে কমছে না।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন