default-image

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেছেন, বাংলাদেশে থাকা বিদেশিরা যদি টিকা নিতে চান, তবে তাঁদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। আজ রোববার প্রথম আলোকে এ তথ্য জানান তিনি।

আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, ইতিমধ্যে বাংলাদেশে থাকা ভারতীয়দের অনেকেই টিকা নেওয়ার আবেদন করেছেন। এখনো যাঁরা আবেদন করেননি, তাঁরা আগ্রহী হলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করতে হবে।
বাংলাদেশে এখন অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভাবিত ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের করোনার টিকা দেওয়া চলছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জানান, কাল সোমবার ভারত থেকে সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি করোনার টিকার ২০ লাখ ডোজ বাংলাদেশে আসছে। এটি হবে করোনার টিকার দ্বিতীয় চালান।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ সরকার, বেক্সিমকো ফার্মা ও ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের মধ্যকার চুক্তি অনুযায়ী সরকার সেরাম ইনস্টিটিউটের কাছ থেকে তিন কোটি টিকা কিনছে।
বেক্সিমকো এই টিকা সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে। গত ২৫ জানুয়ারি এই টিকার প্রথম চালান দেশে আসে। প্রথম চালানে এসেছে ৫০ লাখ টিকা। এর আগে ভারতের উপহার হিসেবে দেশে ২০ লাখ টিকা আসে।

গত ২৭ জানুয়ারি কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তাকে টিকা দেওয়ার মাধ্যমে করোনার টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চ্যুয়ালি টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন