বিজ্ঞাপন

ব্র্যাক জানিয়েছে, করোনার উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ ও লকডাউনের আওতায় থাকা ১৯টি জেলা এই উদ্যোগে প্রাধান্য পাবে। ব্র্যাকের মাঠকর্মীদের মাধ্যমে দুস্থ পরিবারগুলোকে চিহ্নিত করা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাচ্ছে বেশি ক্ষতির ঝুঁকিতে থাকা বয়স্ক মানুষ, গর্ভবতী কিংবা স্তন্যদানকারী মা, বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন মানুষ, নারী উপার্জনকারীর ওপর নির্ভরশীল পরিবার, অতিদরিদ্র জনগোষ্ঠী এবং অন্য কোনো উৎস থেকে সহায়তাবঞ্চিত ব্যক্তি ও পরিবার।

জাতীয়ভাবে এ দুর্যোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠানসহ সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে ব্র্যাক। তাদের ‘ডাকছে আবার দেশ’ (https://www.brac.net/dakcheabardesh/) প্ল্যাটফর্ম গণতহবিল সংগ্রহে এবং প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায় থেকে অবদান রাখায় কাজ করবে।

ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ বলেন, করোনা প্রতিরোধের যুদ্ধ দীর্ঘমেয়াদি। সবার অংশীদারত্ব ছাড়া জয় সম্ভব নয়। সক্ষমতা ও প্রয়োজনীয় দক্ষতা বৃদ্ধি, জনস্বাস্থ্যবিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধি, মাস্ক সরবরাহ এবং মানুষের প্রয়োজনে জরুরি আর্থিক সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে ব্র্যাক মানুষের পাশে আছে। সরকারি-বেসরকারি খাতকে একসঙ্গে এগিয়ে এসে এই দুর্যোগ মোকাবিলা করতে হবে। সামর্থ্যবান সব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ‘ডাকছে আবার দেশ’ উদ্যোগের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

ব্র্যাকের এ উদ্যোগের সঙ্গে এ বছরও গ্রামীণফোন এগিয়ে আসার অঙ্গীকার করেছে। এ ছাড়া যুক্ত হয়েছে স্বাস্থ্যসেবা সংগঠন ‘সহায়’। সংগঠনটির একজন প্রতিষ্ঠাতা অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থী বাংলাদেশি চিকিৎসক তাসনিম জারা বলেন, একজন দিনমজুরের আর্থিক কষ্ট লাঘব করা সবার দায়িত্ব। ব্র্যাকের মাধ্যমে ৬৫টির বেশি পরিবারকে সহযোগিতার পাশাপশি গণতহবিল সংগ্রহে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারণা চালাবেন বলে জানান তিনি।

‘ডাকছে আবার দেশ’ উদ্যোগে যুক্ত হতে—
ব্যাংক হিসাব নাম: ব্র্যাক
হিসাব নম্বর: ১৫০১২০-২৩১৬৪৭৪০০১
ব্যাংকের নাম: ব্র্যাক ব্যাংক
গুলশান ১, গুলশান অ্যাভিনিউ, ঢাকা
বিকাশ নম্বর: ০১৭৩০৩২১৭৬৫

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন