অর্থপাচার মামলায় ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত নেতার স্বীকারোক্তি

বিজ্ঞাপন
default-image

রাজধানীর কাফরুল থানায় করা অর্থপাচার মামলায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন নিশান মাহমুদ। তিনি ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাময়িক বহিষ্কৃত সভাপতি। বুধবার জবানবন্দি রেকর্ড শেষে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

তিন দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে নিশানকে ঢাকার সিএমএম আদালতে হাজির করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করে সিআইডি।
গত ২১ আগস্ট নিশানের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। রাজধানীর উত্তরা থেকে সিআইডির একটি দল গত ২০ আগস্ট নিশানকে গ্রেপ্তার করে। অর্থপাচার মামলায় পলাতক আসামি ছিলেন নিশান।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দুই হাজার কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে ফরিদপুর শহর আওয়ামী লীগের অব্যাহতিপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও তাঁর ভাই ফরিদপুর প্রেসক্লাবের অব্যাহতিপ্রাপ্ত সভাপতি ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের বিরুদ্ধে গত ২৬ জুন ঢাকার কাফরুল থানায় অর্থপাচারের অভিযোগে মামলা করে সিআইডি। এই মামলার আসামি নিশান।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুব্রত সাহার বাড়িতে হামলা এবং মানি লন্ডারিং মামলায় এ পর্যন্ত ফরিদপুর আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর মধ্যে শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমুল হাসান খন্দকার, জেলা শ্রমিক লীগের কোষাধ্যক্ষ বিল্লাল হোসেন, শহর যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসিবুর রহমান ফারহান রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন