এর আগে ২০২০ সালের ২০ নভেম্বর রাজধানীর মেরুল বাড্ডার বাসায় অভিযান চালিয়ে মনিরকে মাদক, অস্ত্রসহ আটক করে র‌্যাব। আটকের পর র‌্যাবের মুখপাত্র জানান, নব্বইয়ের দশকে গাউছিয়া মার্কেটের একটি কাপড়ের দোকানের সেলসম্যান হিসেবে কাজ করতেন মনির। সময়ের ব্যবধানে মনির বড় ধরনের স্বর্ণ চোরাচালানকারী হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। তাঁর নাম হয়ে যায় গোল্ডেন মনির। গ্রেপ্তারের পর মনিরের বিরুদ্ধে বাড্ডা থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়। এ ছাড়া মতিঝিল ও রমনা থানায় তাঁর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য ও দুদক আইনে পৃথক মামলা রয়েছে। গত বছরের ১১ মে মনিরসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে ওই মামলাটি করেন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পরিদর্শক মো. ইব্রাহিম হোসেন।

অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন