প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় নওগাঁর বদলগাছি উপজেলায় এক এসএসসি পরীক্ষার্থীর নামে মুঠোফোনে অশ্লীল ভিডিওচিত্র ছড়ানো হয়েছে। গ্রামের দুই তরুণ ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
মেয়েটির পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মাস ছয়েক ধরে মেয়েটিকে গ্রামের ডিআর নামের এক ছেলে তার বন্ধু শাকিলের মাধ্যমে প্রেমের প্রস্তাব দিচ্ছিল। মেয়েটি তার প্রস্তাবে সাড়া দেয়নি। এ ঘটনার পর মেয়েটির অশ্লীল ভিডিওচিত্র বেরিয়েছে বলে গ্রামে ছড়ানো হয়। এ ঘটনার পর লোকলজ্জায় মেয়েটি কয়েক দিন বাড়ির বাইরে যেতে পারেনি। ঘটনাটি স্থানীয় ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান চৌধুরীকে জানানো হয়েছে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে গ্রামের এক তরুণ জানায়, ১০-১২ দিন আগে তাকে শাকিল মুঠোফোনে ভিডিওচিত্রটি দেখায়। তাকে বলা হয় সেই ভিডিওচিত্রটি নাকি তাদের গ্রামের এক মেয়ের। তবে যে মেয়েটির কথা বলা হচ্ছিল, তার সঙ্গে ভিডিওর মেয়েটির চেহারার মিল খুঁজে পাওয়া যায়নি।
অভিযোগ অস্বীকার করে শাকিল জানায়, সে মুঠোফোন ব্যবহার করে না। গ্রামের ডিআর নামে এক ছেলের মুঠোফোনে ভিডিওটি ছিল। অনেকের সঙ্গে সেও ভিডিওটি দেখেছে।
মেয়েটির বাবা বলেন, ‘হামি গরিব মানুষ। মানষের বাড়িত খাটেখুটে খাই। গাঁয়ের ছেলেরা হামার ইজ্জত শেষ করে দাওচে।’
ডিআরকে না পাওয়ায় তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি। তবে তার পরিবার অভিযোগটি অস্বীকার করেছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন