সুনামগঞ্জের ধরমপাশা উপজেলায় অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীর বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আগামী বুধবার তার বিয়ে হওয়ার কথা।
এলাকাবাসী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বংশীকুণ্ডা উত্তর ইউনিয়নের ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলার এক যুবকের (২৩) বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে। আগামী বুধবার বেলা দুইটার দিকে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হবে। কনেপক্ষের লোকজন বিয়ের অনুষ্ঠানকে ঘিরে যাবতীয় প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
কনের বাবা বলেন, অষ্টম শ্রেণিতে পড়লেও তাঁর মেয়ের ১৮ বছর পূর্ণ হয়ে গেছে। তাই উচ্চমাধ্যমিক পাস ছেলের সঙ্গে মেয়ের বিয়ে ঠিক করেছেন।
এ বিষয়ে ছাত্রীর সঙ্গে কথা বলা যায়নি।
মহেষখলা দাখিল মাদ্রাসার সুপারিনটেনডেন্ট আবদুল আজিজ বলেন, মেয়েটি তাঁদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। ছাত্রীর বিয়ের বিষয়টি তাঁর জানা ছিল না। তবে ছাত্রীটি এক সপ্তাহ ধরে মাদ্রাসায় আসছে না। বিষয়টি তিনি খোঁজ নিয়ে দেখবেন।
বংশীকুণ্ডা উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান বিল্লাল হোসেন বলেন, কয়েক দিন আগে তাঁর কাছে ওই মেয়েটির পরিবারের লোকজন জন্মনিবন্ধন সনদ নিতে এসেছিলেন। তিনি বলেছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে বয়স প্রমাণের সনদ আনতে। মেয়েটি মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী হওয়ায় এবং ১৮ বছর হওয়ার কোনো কাগজপত্র না দেখাতে পারায় তিনি জন্মনিবন্ধন সনদ দেননি।
মধ্যনগর থানার ওসি মাজহারুল হক বলেন, বাল্যবিবাহ বন্ধে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন