নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা ও রাজধানীর দক্ষিণ বাড্ডা এলাকায় গত বুধবার দুই দফা অভিযান চালিয়ে আটটি গুলি, সাতটি ম্যাগাজিন, চারটি পিস্তল এবং তিন শিশুসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা করেছে।
এদিকে ফতুল্লা মডেল থানায় দায়ের করা অস্ত্র আইনের মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া আসামি ইমরানের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে পিস্তলসহ তিনজনকে আটকের ঘটনায় এই মামলা দায়ের করেন। একই ঘটনায় দক্ষিণ বাড্ডা থেকে দ্বিতীয় দফায় অভিযান চালিয়ে তিনটি বিদেশি পিস্তল, তিনটি গুলি, সাতটি ম্যাগাজিনসহ গ্রেপ্তারের ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আজিজুল হক বাদী হয়ে গ্রেপ্তার হওয়া ছয়জনকে আসামি করে অপর মামলাটি করেন।
বুধবার বিকেলে ফতুল্লা বাজার এলাকায় ফতুল্লা প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ ওবায়েদ উল্লাহর কাছে অস্ত্র বিক্রি করতে এলে তিনি বিষয়টি পুলিশকে জানান। পুলিশ অভিযান চালিয়ে পাঁচটি গুলিভর্তি একটি বিদেশি পিস্তলসহ চাঁদপুর জেলার বিষ্ণুপুর গ্রামের মৃত হাফিন মিয়ার ছেলে ইমরান (১৮), একই এলাকার জালাল মিয়ার ছেলে শাকিল (১১), আল আমিনকে (১০) গ্রেপ্তার করে। একই ঘটনায় তাঁদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ওই দিন রাতে দক্ষিণ বাড্ডা এলাকা থেকে আরও তিনটি গুলি, সাতটি ম্যাগাজিন, তিনটি বিদেশি পিস্তলসহ কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার আড্ডা এলাকার খোকন মুন্সীর ছেলে বশির (২৫), নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের চর চনপাড়া এলাকার সিরাজ মিয়ার ছেলে মো. মাসুদ (২৮) ও ওই এলাকার বাচ্চু মিয়ার ছেলে মো. জিশানকে (১১) গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁরা সবাই দক্ষিণ বাড্ডা এলাকায় থাকেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।
জেলা পুলিশের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ফতুল্লা মডেল থানার সহকারী পুলিশ সুপার মো. শরফুদ্দিন জানান, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে সন্ত্রাসীরা কৌশল হিসেবে শিশুদের ব্যবহার করছে। এ কারণে স্কুলের ব্যাগের মধ্যে অস্ত্রগুলো রেখে বহন করছিল। ফতুল্লায় অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে দুই শিশুসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।
অন্যদিকে রাজধানীর দক্ষিণ বাড্ডা এলাকা থেকে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় শিশুসহ মোট ছয়জনকে আসামি করে বাড্ডা থানায় মামলা দায়ের করেন ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আজিজুল হক। ওই মামলায় শিশুদের আসামি করা প্রসঙ্গে তিনি জানান, শিশুদের শিশু আইনেই বিচার হবে।
এদিকে ফতুল্লা মডেল থানায় দায়ের করা অস্ত্র আইনের মামলায় পুলিশ গ্রেপ্তারকৃত তিন আসামিকে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাঈদুজ্জামান শরীফের আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন জানালে শুনানি শেষে আদালত আসামি ইমরানের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।
নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. হাবিবুর রহমান জানিয়েছেন, ফতুল্লা মডেল থানায় অস্ত্র আইনে দায়ের করা মামলায় তিন আসামির মধ্যে ইমরানকে দুই দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন আদালত। কিশোর হওয়ায় অপর দুই আসামি শাকিল (১১) ও আল আমিনের (১০) রিমান্ড নামঞ্জুর করে তাদের গাজীপুর কিশোর সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন