default-image

অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং ১৪৮ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে করা মামলায় সাংসদ শহিদ ইসলামের (পাপুল) স্ত্রী সাংসদ সেলিনা ইসলাম, শ্যালিকা জেসমিন প্রধান ও মেয়ে ওয়াফা ইসলাম আগাম জামিনের জন্য আবেদন করেছেন।  সাংসদ শহিদ এখন কুয়েতের কারাগারে বন্দী।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় ওই তিনজন আগাম জামিন চেয়ে উচ্চ আদালতে পৃথক আবেদন করেছেন বলে আজ শনিবার জানিয়েছেন সংস্থাটির আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘আগাম জামিন চেয়ে করা দুটি আবেদনের কপি গত বৃহস্পতিবার পেয়েছি। একটিতে সেলিনা ইসলাম ও তাঁর মেয়ে আবেদনকারী, অন্যটিতে সেলিনার বোন জেসমিন প্রধান আবেদনকারী।

বিজ্ঞাপন

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চে চলতি সপ্তাহে জামিন আবেদনের ওপর শুনানি হতে পারে।’

মানব ও মুদ্রা পাচারের অভিযোগে কুয়েতে কারাবন্দী হন এই সাংসদ। শহিদ লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সাংসদ। সেলিনা সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ। এই দম্পত্তিসহ চারজনের বিরুদ্ধে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১-এর উপপরিচালক মো. সালাহউদ্দীন ১১ নভেম্বর মামলাটি করেন। তাঁদের বিরুদ্ধে ২ কোটি ৩১ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং ১৪৮ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগ আনা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শহিদ, সেলিনা, জেসমিন ও ওয়াফার ৫টি হিসাবের মাধ্যমে ২০১২ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ১৪৮ কোটি টাকা পাচার হয়। জেসমিন ও ওয়াফার বৈধ কোনো আয়ের উৎস নেই। জেসমিন এফডিআর হিসাবে ২ কোটি ৩১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৩৮ টাকা দেখিয়েছেন। তাঁর কোনো বৈধ উৎস তিনি দাখিল করতে পারেননি। শহিদ ও সেলিনার বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদের অভিযোগ আনা হয়েছে।

মন্তব্য করুন