আশুলিয়ায় হাত-পা বেঁধে ২ ছাত্রকে মারধর, শিক্ষক গ্রেপ্তার

বিজ্ঞাপন
default-image

ঢাকার আশুলিয়ায় এক মাদ্রাসাশিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠানের দুই ছাত্রকে হাত-পা বেঁধে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। দুই ছাত্রকে নির্যাতনের ঘটনা সোমবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসী ওই শিক্ষককে মারধর করেন। পরে চিকিৎসার জন্য তাদের সাভারের গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার পুলিশ ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে।

ওই শিক্ষকের নাম ইব্রাহিম হোসেন। তিনি আশুলিয়ার শ্রীপুর মধুপুর জাবেলে নূর মাদ্রাসার শিক্ষক।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ জানিয়েছে, ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওর ঘটনাটি গত শুক্রবারের। ভিডিওতে দেখা যায়, এক শিক্ষক দুই ছাত্রকে হাত-পা বেঁধে বেত দিয়ে বেধড়ক পেটাচ্ছেন ও লাথি মারছেন। এ সময় আরও বেশ কয়েকজন ছাত্র সেখানে উপস্থিত ছিল।

পুলিশ জানায়, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই দুই ছাত্রকে মারধর করা হয়। তাদের একজনের নাম রাকিবুল ইসলাম (১০) ও অপরজনের নাম মাহফুজুর রহমান (১১)। ওই ঘটনায় মঙ্গলবার রাকিবুল ইসলামের বাবা ইমাদুল ইসলাম বাদী হয়ে শিক্ষক ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় মামলা করেছেন।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম বলেন, ছাত্রদের নির্যাতনের ঘটনায় শিক্ষক ইব্রাহিম হোসেনকে মঙ্গলবার সকালে আটক করা হয়। পরে রাকিবুলের বাবার করা মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন