বরগুনার তালতলী উপজেলার কড়ইবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মাস্টার ও তাঁর ছেলেসহ চারজনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা হয়েছে। পুরোনো একটি সেতুর মালামাল চুরি এবং কর্মসৃজন প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গত রোববার দুজন ইউপি সদস্য বাদী হয়ে ওই মামলা করেন।
এজাহারে উল্লেখ করা হয়, কিছুদিন আগে কড়ইবাড়িয়া ইউনিয়নের দোনাই খালের পুরোনো একটি সেতুর পাঁচ লাখ টাকার অধিক মূল্যমানের মালামাল ট্রাকে করে পাচার করা হচ্ছিল। আমতলী থানার পুলিশ ট্রাকটি জব্দ করে। ইউপি চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ, তাঁর দুই ছেলে মো. শামিম ও মো. মামুন চৌকিদার জাফর হোসেনের সহায়তায় এই মালামাল চোরাই পথে বিক্রি করে দেন।
সেতুর মালামাল আত্মসাৎ করার অভিযোগ এনে এই মামলা করেন ইউপি সদস্য জালাল গাজী। এদিকে কর্মসৃজন প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে আরেক ইউপি সদস্য সেকান্দার আলী খান চেয়ারম্যান, তাঁর ভাই নুরুল হক ও ছেলে শামিমের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মাস্টার বলেন, তাঁর সম্মান নষ্ট করতে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এসব মামলা করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন