রাঙামাটির নানিয়ারচরের বগাছড়ি চৌমুহনী এলাকায় রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে গতকাল সোমবার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের গাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রন বিকাশ চাকমা আহত হন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নানিয়ারচর উপজেলার বুড়িঘাট ইউনিয়নের ১৪ মাইল এলাকায় ১৫ ডিসেম্বর রাতে আনারস ও সেগুন চারা বিনষ্টকারী ও বাঙালিদের ভূমি দখলকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে ‘বাঙালি ভূমি উদ্ধার কমিটির’ ব্যানারে তিন দিনের অবরোধের শেষ দিন ছিল গতকাল। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় জেলা প্রশাসক যাচ্ছেন—এমন খবর পেয়ে নানিয়ারচর সদর থেকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা নিজের জিপে করে ওই এলাকার উদ্দেশে যাত্রা করেন। এ সময় তাঁর সঙ্গে ইউএনও মো. নুরুজ্জামান, ভাইস চেয়ারম্যান রন বিকাশ চাকমা ও থানার ওসি মো. রশীদ ও পুলিশের আরও দুজন সদস্য ছিলেন। বেলা তিনটার দিকে বগাছড়ি চৌমুহনী এলাকায় ৩০-৪০ জন অবরোধ-সমর্থক তাঁদের গাড়িতে হামলা চালান। এ সময় গাড়ির সামনের আসনে বসা ভাইস চেয়ারম্যান রন বিকাশ চাকমাকে বর্শা দিয়ে আঘাত করার চেষ্টা করা হলে তিনি হাতে আঘাত পান। পরে গাড়ি থেকে নামিয়ে তাঁকে মারধর করা হয়। এতে তাঁর মাথা ফেটে যায়। রন বিকাশ চাকমাকে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসি মো. রশীদ বলেন, ঘটনার আকস্মিকতায় তাঁরা কিছু করার সুযোগ পাননি।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন