default-image

উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন প্রথম আলোকে বলেন, উত্তরা ১২ নম্বর সেক্টরের ৬ নম্বর রোডের প্লটে মেসার্স বিসমিল্লাহ স্টোর নামে একটি গোডাউন আছে। ঈদের দিন রাতে গুদামের তালা ভেঙে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ৯ কার্টন সিগারেট চুরি হয়ে যায়। পরে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে জসিম, তাঁর স্ত্রী ও অন্য আসামিদের শনাক্ত করা হয়। এরপর জসিমের দেওয়া তথ্যমতে তাঁর স্ত্রী খুশিকে তুরাগ থানার পাকুরিয়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ওসি বলেন, তাঁদের কাছ থেকে চুরি করা বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ৩ কার্টন সিগারেট, যার আনুমানিক মূল্য ৩ লাখ টাকা এবং সিগারেট বিক্রির ৪ লাখ ৯৫ হাজার টাকা জব্দ করা হয়। তিনি আরও বলেন, পলাতক বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।

থানা–পুলিশ সূত্র জানায়, জসিম নিজেও ব্যবসায়ী। তাঁর মুঠোফোনে টাকা লোডের দোকান আছে। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, জসিমের বিভিন্ন জায়গায় ৮০ হাজার টাকার ঋণ ছিল। এ ঋণ শোধ করতেই চুরির পরিকল্পনা করেন। দুই মাস ধরে তাঁরা এই পরিকল্পনা করছিলেন।

ঈদের দিন মানুষ কম থাকায় ওই দিনকেই বেছে নেন তাঁরা। পরিকল্পনা অনুযায়ী জসিম ভ্যান নিয়ে বাইরে দাঁড়িয়ে থাকেন। তিনজন গুদাম থেকে কার্টন নিয়ে আসেন। আর স্ত্রী খুশি বাইরে পাহারা দিয়ে সব ফোনে জানান। কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে সব ধরা পড়ে যায়।

অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন