রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এমাজউদ্দীন আহমদের বাড়িতে গুলি করার ঘটনায় গতকাল রোববার পর্যন্ত থানায় মামলা বা সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হয়নি। গত শনিবার সন্ত্রাসীরা ওই বাড়ি লক্ষ্য করে গুলি করলে একটি এমাজউদ্দীনের শয়নকক্ষের জানালার কাচে লাগে।
নিউমার্কেট থানার পুলিশ জানায়, এটি গুলি না ককটেলজাতীয় কিছুর বিস্ফোরণের কারণে হয়েছে, তা এখনো নিশ্চিত নয়।
কাঁটাবনের পশ্চিম পাশে সড়কঘেঁষে অধ্যাপক এমাজউদ্দীনের চারতলা বাড়ি। সেখানে তিনি ও পরিবারের সদস্যরা থাকেন। গতকাল বিকেলে ওই বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, দোতলায় তাঁর শয়নকক্ষের জানালার কাচে ছিদ্র। কাচ কিছুটা ফেটেও গেছে।
অধ্যাপক এমাজউদ্দীন প্রথম আলোকে বলেন, শনিবার রাত নয়টার দিকে তিনি শয়নকক্ষের পাশের কক্ষে খাচ্ছিলেন। এ সময় তিনি চারটি গুলির শব্দ পান। দ্রুত শয়নকক্ষে গিয়ে দেখেন, জানালার কাচে গুলির ছিদ্র। পরে বাড়ির নিরাপত্তাকর্মীরা জানান, দুটি মোটরসাইকেলে আসা চার যুবক বাড়ি লক্ষ্য করে গুলি করে চলে গেছে। কে বা কারা কেন এ ঘটনা ঘটিয়েছে, সে ব্যাপারে কিছু ধারণা করতে পারছেন না তিনি।
এমাজউদ্দীনের পরিবার জানায়, ঘটনার পর পুলিশ এসেছিল। তবে বাড়ির ভেতর থেকে গুলি বা গুলির খোসা পায়নি তারা। নিরাপত্তা হিসেবে বাড়ির আশপাশে টহল দেওয়া হবে বলে পুলিশ আশ্বাস দিয়েছে। পুলিশ দেখে গেছে বলে তাঁরা কোনো লিখিত অভিযোগ করেননি।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসিন আরাফাত প্রথম আলোকে বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ না করায় এ ঘটনায় থানায় কোনো অভিযোগ তালিকাভুক্ত হয়নি। তবে ঘটনাটি গুলি না ককটেলজাতীয় কিছুর বিস্ফোরণ, সে ব্যাপারে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন