ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে এবং সাদা পোশাকে অভিযান পরিচালনা করায় চট্টগ্রাম নগর পুলিশের এক উপপরিদর্শকসহ (এসআই) তিনজনকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে (ক্লোজড) দেওয়া হয়েছে। তাঁরা হলেন পাহাড়তলী থানার এসআই চম্পক চক্রবর্তী, উপসহকারী পরিদর্শক (এএসআই) কাজল বড়ুয়া ও কনস্টেবল আবদুল ওহিদ। গত বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. ইকবাল বাহারের নির্দেশে তাঁদের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দামপাড়া পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।
পুলিশ পরিচয়ে মানুষকে হয়রানি, ছিনতাই, ডাকাতিসহ নানা অপরাধ বেড়ে যাওয়ায় সারা দেশে সাদা পোশাকে পুলিশের অভিযান পরিচালনা না করতে নির্দেশনা রয়েছে।
জানতে চাইলে পাহাড়তলী থানার এসআই চম্পক চক্রবর্তী গতকাল বিকেলে প্রথম আলোকে বলেন, ‘সোর্সের কাছ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে সংবাদ পেয়ে ৬০টি ইয়াবা বড়িসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসি। অভিযানের সময় গায়ে ইউনিফর্ম ছিল না।’
চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. ইকবাল বাহার প্রথম আলোকে বলেন, সাদা পোশাকে অভিযান পরিচালনা না করতে পুলিশ সদস্যদের নির্দেশ দেওয়া আছে। এরপরও পাহাড়তলী থানার তিন পুলিশ সদস্য নির্দেশ অমান্য করে অভিযান পরিচালনা করেন। তাঁরা সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করেননি। এ কারণে পাহাড়তলী থানার এক এসআইসহ তিন পুলিশ সদস্যকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দামপাড়া পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।
পাহাড়তলী থানার ওসি রণজিৎ কুমার বড়ুয়া জানান, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরের এ কে খান গেট এলাকা থেকে ৬০টি ইয়াবা বড়িসহ মো. জাহেদ নামের তালিকাভুক্ত এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। থানার এসআই চম্পক চক্রবর্তীর নেতৃত্বে অভিযানে অংশ নেন আরও দুই পুলিশ সদস্য। কিন্তু তাঁরা সাদা পোশাকে অভিযানটি পরিচালনা করেন। কমিশনারের নির্দেশে তিন পুলিশ সদস্যকে রাতেই দায়িত্ব থেকে সরিয়ে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন