চট্টগ্রাম নগরের গোলপাহাড়ে আজ রোববার বিকেলে ককটেল ফাটিয়ে পালানোর সময় ক্ষুব্ধ জনতা এক দুর্বৃত্তকে গণপিটুনি দিয়েছে। গণপিটুনির পর তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হলেও পুলিশের চোখ এড়িয়ে সে পালিয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বিকেল সাড়ে চারটার দিকে মোটরসাইকেল আরোহী তিন যুবক গোলপাহাড় এলাকায় পর পর তিনটি ককটেল ফাটায়। তাদের কাছে ছাত্রশিবিরের প্রচারপত্র ছিল। ককটেলগুলো বিকট শব্দে ফাটার পর ওই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। মোটরসাইকেল আরোহীরা বাদশা মিয়া সড়ক দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় একটি রিকশা তাদের সামনে এসে পড়ে। এতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেল আরোহীরা রাস্তায় পড়ে যায়। এ সময় দুজন পালিয়ে যায়। স্থানীয় জনতা আরেকজনকে ধরে ফেলে গণপিটুনি দেয়। এ সময় তাদের মোটরসাইকেল ও ছাত্রশিবিরের প্রচারপত্রে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। কিছুক্ষণ পর পুলিশ এলে ওই যুবককে সোপর্দ করা হয়। তবে পুলিশ মোটরসাইকেলের আগুন নেভাতে গেলে ওই যুবক পালিয়ে যায়।

চট্টগ্রাম মহানগরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কমিশনার এ কে এম শহিদুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ‘টহল পুলিশ যাওয়ার আগেই ককটেল হামলাকারীরা পালিয়ে যায় বলে ওসি আমাকে জানিয়েছেন। তবে হামলাকারীর ছবি সংগ্রহ করা হয়েছে। আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে ওই তিনজকে ধরতে পারব বলে আশা করছি।’

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন