রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের এক নেতাকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। গত শনিবার সন্ধ্যার পরে উপজেলা পরিষদের এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।
আহত ওই ছাত্রনেতার নাম রাজীব মোল্লা (২০)। তিনি বালিয়াকান্দি সদর ইউনিয়নের শেখপাড়া গ্রামের সলেমান আলী মোল্লার ছেলে। রাজীব ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিসাধীন। একই ঘটনায় ইমরান মোল্লা নামে আরেক কর্মী আহত হন।
এজাহার ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রের বিবরণ অনুযায়ী, শনিবার সন্ধ্যায় বালিয়াকান্দি সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়। এতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বাদশা আলমগীর সভাপতি নির্বাচিত হন। কিন্তু সাধারণ সম্পাদক পদে রাজীব মোল্লা ও সাইফুল ইসলামের মধ্যে ভোটাভুটি হয়। ভোটে সাইফুল পরাজিত হন। কমিটি গঠন শেষে উপজেলা কার্যালয়ের সামনে পৌঁছানোর পর সাইফুলের সমর্থকেরা রাজীবের ওপর হামলা চালায়। এ সময় রাজীবকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়। তাঁকে উদ্ধার করতে গেলে ইমরানকেও পিটিয়ে আহত করা হয়। খবর পেয়ে অন্যরা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।
বালিয়াকান্দি থানার ওসি এস এম শাহজালাল জানান, রাজীবের বাবা সোলেমান আলী মোল্লা আটজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন। আসামি সাইফুলের চাচা তোফায়েল আহমেদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে তাঁকে রাজবাড়ী আদালতে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন