নেত্রকোনার কলমাকান্দায় জুয়েল মিয়া (২৫) নামের এক যুবককে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল সোমবার সকালে উপজেলার তেলীগাঁও এলাকার একটি ধানখেত থেকে পুলিশ তাঁর লাশ উদ্ধার করেছে।

   এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ দুজনকে আটক করেছে। পরিবারের অভিযোগ, জুয়েলকে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

নিহত যুবকের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাদেআমতৈল গ্রামের আবুল কালাম আজাদের ছেলে জুয়েল মিয়া স্থানীয় পালবাড়ি বাজারে তাঁর বাবার সারসহ বিভিন্ন পণ্যের ব্যবসা দেখাশোনা করতেন। তিনি রাতে দোকানেই থাকতেন। গত রোববার রাত ১০টার দিকে জুয়েল দোকান বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়েন। গতকাল সকালে পার্শ্ববর্তী তেলীগাঁও এলাকার একটি ধানখেতে তাঁর লাশ পাওয়া যায়। বেলা ১১টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে। খবর পেয়ে বারহাট্টা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. আমিনুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

জুয়েলের চাচা ইসমাইল হোসেন সিরাজী বলেন, ‘টাকাপয়সার লেনদেনকে কেন্দ্র করে দোকান থেকে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে জুয়েলকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।’

এ ব্যাপারে কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বশির আহমেদ গতকাল বিকেলে জানান, নিহত জুয়েলের ডান কানে ধারালো অস্ত্রের জখম রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, পরিকল্পিতভাবে তাঁকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে শহিদ ও নূরে আলম নামের দুজনকে আটক করা হয়েছে। 

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন