পাওনা টাকা পরিশোধ করতে বলায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের এক বহিষ্কৃত নেতা এক হল ক্যানটিনের ব্যবস্থাপককে মারধর করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে এ ঘটনা ঘটে।
বঙ্গবন্ধু হলের কয়েকজন আবাসিক শিক্ষার্থী প্রথম আলোকে জানিয়েছেন, বহিষ্কৃত ওই নেতার নাম মেহেদী হাসান। কয়েকজন সঙ্গী নিয়ে তিনি গতকাল সন্ধ্যায় ক্যানটিনে খেতে যান। এ সময় তাঁকে আগের পাওনা টাকা পরিশোধ করতে বলেন ক্যানটিনের ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম। এতে মেহেদী ক্ষিপ্ত হয়ে উচ্চবাচ্য শুরু করেন। তিনি একপর্যায়ে শফিকুলকে কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। পরে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান নিজ কক্ষে নিয়ে বিষয়টি মিটমাট করেন।
এ বিষয়ে মিজানুর রহমান বলেন, ‘মারধরের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ওদের মধ্যে ভুল-বোঝাবুঝি হয়েছিল। পরে তা সমাধান করে দিয়েছি।’
ক্যানটিনের ব্যবস্থাপক শফিকুল বলেন, ছাত্রলীগের সভাপতি ডেকে নিয়ে তাঁর পাওনা ১০ হাজার টাকা দিয়ে মীমাংসা করেন।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন