দুটি বাসে থাকা যাত্রীদের কাছ থেকে ডাকাতেরা ৫০ হাজার টাকা ও প্রায় ১৫টি মুঠোফোন ছিনিয়ে নেয়

ডাকাতির শিকার ব্যক্তি ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বামন্দী-প্রাগপুর সড়কের ব্রজপুর এলাকায় গতকাল ভোর পাঁচটার দিকে গাছ ফেলে রাখে ডাকাতেরা। এ সময় ঢাকা থেকে গাংনীগামী ফাতেমা ও শ্যামলী পরিবহনের দুটি বাস সেখানে এসে আটকা পড়ে। বাসে থাকা যাত্রীদের কাছ থেকে ডাকাতেরা ৫০ হাজার টাকা ও প্রায় ১৫টি মুঠোফোন ছিনিয়ে নেয়। পাশাপাশি ফাতেমা পরিবহনের চালকের সহকারী মিজানুর রহমানকে মারধর করে ডাকাতেরা। তাঁকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। একইভাবে ডাকাতেরা ঘটনাস্থলে আসা একটি ট্রাকের চালক ও সহকারী এবং একজন পথচারীর সর্বস্ব লুটে নেয়।

এদিকে ডাকাত দলটি চলে যাওয়ার সময় তাদের সামনে পড়েন স্থানীয় একটি মসজিদের মুয়াজ্জিন জিয়াউর রহমান। ডাকাতেরা তাঁকে একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে যায়।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন (ওসি) বলেন, বাস দুটিতে তেমন কোনো যাত্রী ছিল না। এ ডাকাতির ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

এর আগে ৬ মার্চ ভোরে গাংনী উপজেলার আকুবপুর এলাকায় ডাকাতের কবলে পড়ে মেহেরপুর পৌর কলেজের শিক্ষাসফরের পাঁচটি বাস। তখনো সড়কে গাছ ফেলে বাসগুলো আটকানো হয়েছিল। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পরে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন