default-image

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কামারজুড়ি এলাকার একটি বাড়ির সেপটিক ট্যাংকের ভেতর থেকে এক বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার সকালে এই লাশ উদ্ধারের ঘটনা ঘটে। ওই ছাত্র ১২ মে থেকে নিখোঁজ ছিলেন।

নিহত ছাত্রের নাম ইসমাইল হোসেন জিসান (২৪)। তিনি ঢাকার শেরেবাংলা নগরের ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন অব বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের গাছা থানা এলাকার কাথুরা গ্রামের সাব্বির হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও নিহত ছাত্রের পরিবার সূত্রে জানা যায়, জিসান ১২ মে গাজীপুরের কাথুরা গ্রাম থেকে একটি মোটরসাইকেল নিয়ে বের হন। এরপর তিনি আর বাড়িতে ফিরে আসেননি। এরপর ১৬ মে তাঁর বাবা ঢাকার শেরেবাংলা নগর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। পরদিন গাজীপুরের গাছা থানায় তিনি আরেকটি জিডি করেন। পরে শেরেবাংলা নগর থানার পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার করে কামারজুড়ি এলাকার মুদি ব্যবসায়ী হাসিবুল ইসলামকে আটক করে। পরে তাঁর দেওয়া তথ্যমতে, গাজীপুরের কামারজুড়ি এলাকার একটি বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে আজ সকালে জিসানের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। জিসানের মোটরসাইকেল ও মোবাইল ফোন হাসিবুলের দোকান থেকে উদ্ধার করা হয়।

গাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন জানান, জিসানকে হত্যা করে তাঁর মোটরসাইকেল ও ফোন ছিনিয়ে নেন অপরাধীরা। পরে জিসানকে ওই সেপটিক ট্যাংকের ভেতর ফেলে দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0