গ্রেপ্তার তিন ব্যক্তি হলেন শাহ পরান (১৯), মো. রাহাত হোসেন (২৩) ও সুমা আক্তার (২০)।

নিয়াজ মোহাম্মদ বলেন, ১৩ ডিসেম্বর কিশোরী গাজীপুরের বাসা থেকে খাতা–কলম কেনার জন্য বের হয়। পরে তাকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়। এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে গাজীপুর সদর থানায় মামলা করেন।

নিয়াজ মোহাম্মদ জানান, প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‍্যাব-৭ চট্টগ্রাম ছায়া তদন্ত শুরু করে।

ছায়া তদন্ত ও তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় একপর্যায়ে র‍্যাব জানতে পারে, অপহরণকারীরা চট্টগ্রাম মহানগর ইপিজেড থানার খান সুফিয়া ম্যানশন কাস্টমস বিল্ডিংয়ে অবস্থান করছেন। পরে র‍্যাব অভিযানে যায়। র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামিরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ছাড়া ঘটনাস্থল থেকে অপহরণের শিকার কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়।

র‍্যাব-৭ চট্টগ্রাম জানায়, পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আসামিদের গাজীপুরের সংশ্লিষ্ট থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। উদ্ধার কিশোরীকেও থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন