বিস্ফোরক মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া এক আসামির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী চট্টগ্রামের গোসাইলডাঙ্গা এলাকা থেকে ১৭টি পেট্রলবোমা, ১৬টি ককটেল ও বিস্ফোরক তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার রাত আটটার দিকে গোসাইলডাঙ্গার রিকশার একটি গ্যারেজ থেকে এসব উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ জানায়, গোসাইলডাঙ্গা এলাকার সুলতান মিয়ার গ্যারেজ থেকে এসব উদ্ধার করা হয়। তাঁকেও ধরার চেষ্টা চলছে।
পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাতে কুমিল্লার কান্দিরপাড় এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় বিস্ফোরক মামলার আসামি মো. ইমরানকে (২২)। ১০ ফেব্রুয়ারি কাস্টমস মোড় এলাকায় বাসে ককটেল ছুড়ে মারেন ইমরান ও তাঁর সহযোগী। এ ঘটনায় বন্দর থানায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা হয়। এর পর থেকে পলাতক ছিলেন তিনি। পুলিশের দাবি, ইমরান ছাত্রদলের কর্মী। তাঁর বাড়ি বন্দর এলাকায়।
পুলিশের দাবি, নাশকতা ঘটনানোর উদ্দেশ্যে সেখানে বোমা, ককটেল ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম জড়ো করা হয়েছিল। উদ্ধার করা সরঞ্জামের মধ্যে দুই কেজি গানপাউডার ও চার কেজি স্প্লিন্টার রয়েছে।
বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহেদুল ইসলাম জানান, ইমরানকে গ্রেপ্তারের পর তাঁর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অভিযান চালিয়ে গোসাইলডাঙ্গা থেকে পেট্রলবোমা, ককটেলসহ বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন