চট্টগ্রামে দুর্বৃত্তদের ছোড়া ককটেল হামলায় তিন নারী পোশাকশ্রমিক আহত হয়েছেন। গতকাল রোববার রাত সাড়ে নয়টায় নগরের বায়েজিদ বোস্তামী মাজার গেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
আহত নারী শ্রমিকেরা হলেন রহিমা বেগম, তাহেরা বেগম ও মাহফুজা আক্তার। তাঁদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক হামিদুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, বায়েজিদ বোস্তামী এলাকার সিরিনা গার্মেন্টসের তিন নারী শ্রমিক কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে দুর্বৃত্তরা ককটেল ছুড়ে মারলে তাঁরা আহত হন। তাঁদের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন।
বায়েজিদ বোস্তামী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাবুল চন্দ্র বণিক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।
পেট্রলবোমা উদ্ধার: চট্টগ্রামে পরিত্যক্ত অবস্থায় ১০টি পেট্রলবোমা উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল ভোর চারটায় সিজিএস কলোনি এলাকা থেকে বোমাগুলো উদ্ধার করে পুলিশ। তবে এ ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করা যায়নি। নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (পশ্চিম) এস এম তানভীর আরাফাত বলেন, ‘সিজিএস কলোনিতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বসবাস করেন। শিবিরের ছেলেরা বোমাগুলো সেখানে রেখেছে বলে আমাদের কাছে তথ্য রয়েছে। তাদের ধরার জন্য অভিযান চলছে।’
ডবলমুরিং থানার ওসি নুরুল আলম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিজিএস কলোনির একটি পরিত্যক্ত ভবনের শৌচাগারের ভেতর থেকে তিনটি এবং একই এলাকার একটি ক্লাবের পাশের বাগান থেকে সাতটি পেট্রলবোমা উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ডবলমুরিং থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। জড়িত ব্যক্তিদের শনাক্ত করা গেলে তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন