ছবি তুলতে চাওয়ায় তল্লাশিচৌকিতে সাংবাদিককে মারধর

বিজ্ঞাপন

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার খাড়াজোড়া এলাকায় বন বিভাগের একটি তল্লাশিচৌকিতে গতকাল বুধবার এক সাংবাদিককে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও আহত সাংবাদিকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কালিয়াকৈরের খাড়াজোড়া এলাকায় বন বিভাগের তল্লাশিচৌকিতে ঈদ সামনে রেখে ট্রাক থামিয়ে চাঁদা নেওয়া হচ্ছে। গতকাল সকালে সেখান দিয়ে মোটরসাইকেলে করে যাওয়ার সময় চাঁদাবাজির দৃশ্য দেখতে পান আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার কালিয়াকৈর প্রতিনিধি সাগর আহমেদ। একপর্যায়ে তিনি ওই দৃশ্য ক্যামেরাবন্দী করার চেষ্টা করেন। তখন তল্লাশিচৌকির গার্ড (প্রহরী) মো. রফিক, আবুল বাশার ও দালাল আবদুল আজিজ সাংবাদিক সাগরকে ধরে তাঁদের ঘরে নিয়ে বেধড়ক মারধর করেন। এরপর তাঁর ল্যাপটপ, ক্যামেরা ও টাকা ছিনিয়ে নেন। পরে কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী বিষয়টি স্থানীয় অন্য সাংবাদিক ও পুলিশকে জানান। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কালিয়াকৈর থানার পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আবদুল আজিজকে (৪৫) আটক করে। এ সময় বন বিভাগের গার্ড মো. রফিক, আবুল বাশার দৌড়ে পালিয়ে যান। অন্য সাংবাদিকেরা সাগরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।
জনতে চাইলে বন বিভাগের চন্দ্রা বিট কর্মকর্তা আকরাম হোসেন বলেন, জরুরি কাজে তিনি গাজীপুর আদালতে গিয়েছিলেন। এই সুযোগে গার্ডরা ট্রাক থেকে টাকা তুলতে পারেন। তবে তিনি সাংবাদিককে মারধরের ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
কালিয়াকৈর থানার ওসি আবদুল মোতালেব মিয়া বলেন, এ ঘটনায় সাগর আহমেদ অভিযোগ দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন