নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে বাংলাবাজার এলাকায় গতকাল সোমবার সড়ক দুর্ঘটনায় ছাত্রলীগের দুই নেতা নিহত ও একজন আহত হয়েছেন।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন ইসমাইল হোসেন (২৫) ও মো. তারেক (২২)। দুর্ঘটনায় ছাত্রলীগের নেতা আবুল হাসেম (২২) গুরুতর আহত হন।

নিহত ইসমাইল ও তারেকের বাড়ি সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের হাজীরহাট এলাকায়। আহত হাসেমের বাড়িও একই এলাকায়।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইবনে ওয়াজেদ ওরফে ইমন জানান, নিহত ইসমাইল ধর্মপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী ছিলেন। এ ছাড়া তারেক ও হাসেম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ছিলেন। তিনি জানান, বিকেলে জেলা শহরে হরতাল-অবরোধবিরোধী বিক্ষোভ মিছিল শেষে তাঁরা মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন। বাংলাবাজার এলাকায় মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশের একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুর্ঘটনার পর নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে ইসমাইল ও তারেক মারা যান। গুরুতর আহত হাসেমকে একই হাসপাতালে নেওয়া হয়।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী জানান, হাসেমকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, নিহত ব্যক্তিদের লাশ হাসপাতালের মর্গে আছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন