পটুয়াখালী ও সিলেটে জঙ্গি সন্দেহে এবং নিষিদ্ধঘোষিত সংগঠন হিযবুত তাহ্‌রীরের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। শনিবার রাতে এবং রোববার তাঁদের আটক করা হয়।

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় জঙ্গি সন্দেহে আটক হওয়া চারজন হলেন মো. জামাল হোসেন, পাপ্পু, মিলন সিকদার ও বাবুল খান। গতকাল সকালে কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সামনের শহীদ সুরেন্দ্র মোহন চৌধুরী সড়ক থেকে তাঁদের আটক করে পুলিশ। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে একটি হাতে আঁকা সাদা কাগজে সাংকেতিক মানচিত্র, ইলেকট্রিক তিনটি টেপ, দুটি হ্যান্ড গ্লাভস উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আটককৃত জামাল হোসেনের বাড়ি পিরোজপুর জেলার লক্ষণা গ্রামে। মিলন সিকদারের বাড়ি মঠবাড়িয়া উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামে। জামাল ঢাকার পল্টনে আলম মজুমদার ট্রাভেলিং এজেন্সির টিকিট বুকিং ক্লার্ক হিসেবে কর্মরত। পাপ্পুর বাড়ি ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার হেতালবুনিয়ায়।

কলাপাড়া থানার ওসি জি এম শাহনেওয়াজ বলেন, আটককৃত ব্যক্তিরা কোন জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে জড়িত কিংবা কী উদ্দেশ্যে এই এলাকায় এসেছেন, তা জানতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সিলেট নগরের খাসদবীর এলাকা থেকে গত শনিবার রাতে নিষিদ্ধঘোষিত সংগঠন হিযবুত তাহ্‌রীরের প্রচারপত্রসহ মো. আশরাফুল করিম খান (২৮) নামের এক তরুণকে আটক করে র‍্যাব। র‍্যাব-৯-এর সহকারী পরিচালক জে এম ইমরান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিজেকে হিযবুত তাহ্‌রীরের একজন সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করেছেন আশরাফুল।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন