ঢাকার সাভারের জোড়পোল এলাকায় গত বৃহস্পতিবার বিকাশ কর্মীদের কাছ থেকে প্রায় ১৭ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এরপর দুই দিন পার হলেও পুলিশ কোনো মামলা নেয়নি।
তবে পুলিশের দাবি, বিকাশের টাকা ছিনতাইয়ের কোনো ঘটনা তাদের জানা নেই। পুলিশের কাছে এমন কোনো অভিযোগও কেউ করেননি।
বিকাশের সাভারের এজেন্ট সূত্র জানায়, বিকাশ সাভারের এজেন্ট গ্লোরি ডিস্ট্রিবিউটিং করপোরেশনের সুপারভাইজার রফিকুল ইসলাম ও আশিকুর রহমান গত বৃহস্পতিবার ১৬ লাখ ৬২ হাজার টাকা নিয়ে সাভার বাসস্ট্যান্ড এলাকার মফিজ প্লাজায় তাঁদের কার্যালয়ে ফিরছিলেন। বেলা একটার দিকে জোড়পোল এলাকায় পৌঁছালে পেছন থেকে একটি মাইক্রোবাস এসে তাঁদের গতিরোধ করে। এরপর কয়েকজন দুর্বৃত্ত মাইক্রোবাস থেকে নেমে টাকার থলে ছিনিয়ে নিয়ে দ্রুত সটকে পড়ে।
গ্লোরি ডিস্ট্রিবিউটিং করপোরেশনের ব্যবস্থাপক মিজানুর রহমান বলেন, হেমায়েতপুর এলাকার কয়েকজন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে টাকা সংগ্রহ করে ওই দুই সুপারভাইজার একটি মোটরসাইকেলে করে সাভারে ফিরছিলেন। পথে জোড়পোল এলাকায় তাঁরা ছিনতাইয়ের কবলে পড়েন। ঘটনার পরপরই বিষয়টি সাভার মডেল থানাকে জানানো হয়। কিন্তু গতকাল শনিবার পর্যন্তও থানায় মামলা করা সম্ভব হয়নি।
এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বলেন, ‘বিকাশের টাকা ছিনতাইয়ের কোনো ঘটনা আমার জানা নেই। এ রকম কোনো অভিযোগ নিয়ে আমার কাছে কেউ আসেননি। অভিযোগ দিলে মামলা নিতে কোনো অসুবিধা নেই।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0