বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

র‍্যাব-৪–এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম জানান, ১২ সেপ্টেম্বর অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী তার কাফরুলের বাসা থেকে স্কুলে যাওয়ার কথা বলে বের হয়। পরে সে আর বাসায় ফেরেনি উল্লেখ করে তার বাবা কাফরুল থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। র‍্যাব-৪ বরাবরও ওই ছাত্রীর বাবা একটি অভিযোগ দেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে র‍্যাব ছায়া তদন্ত শুরু করে। পরে গফরগাঁও থেকে স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়।

র‍্যাব জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রায়হান বলেছেন, তিনি একটি অপহরণকারী চক্রের অন্যতম সদস্য। রাজধানীর নর্দ্দায় চক্রের অন্যতম সদস্য রবিন ও খোকনের সঙ্গে তিনি থাকেন। রবিন ও খোকন এখন পলাতক। এই চক্রে সাত–আটজন সদস্য রয়েছেন। রায়হান একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে গাড়ি চালাতেন। তাঁর স্ত্রী ও সন্তান নারায়ণগঞ্জে বসবাস করেন। চক্রের সদস্যরা স্কুলছাত্রীকে ফাঁদে ফেলে কৌশলে অপহরণ করেন।


র‍্যাব-৪–এর পুলিশ সুপার জয়িতা শিল্পী প্রথম আলোকে বলেন, মেয়েটির বয়স খুবই কম। তাকে ফাঁদে ফেলে, ভুল বুঝিয়ে অপহরণ করা হয়েছিল। বড় বিপদ হওয়ার আগেই মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়েছে।

অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন