বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়ায় শ্রমিকদের এক পক্ষের হামলায় অপর পক্ষের এক নেতা আহত হয়েছেন। তালোড়া পৌর এলাকায় টোল আদায়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে গতকাল শুক্রবার এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় তাঁর পক্ষের শ্রমিকেরা সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছেন।
আহত শ্রমিকনেতার নাম রিপন প্রামাণিক (৩৪)। তিনি জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন তালোড়া শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক। তিনি ট্রাক চালান। তাঁকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল সকাল ১০টার দিকে দুপচাঁচিয়া-তালোড়া সড়কে তালোড়া পৌরসভার টোল আদায় করার সময় মিনিট্রাকচালক মন্টুর সঙ্গে আদায়কারী রুবেলের কথা-কাটাকাটি হয়। মন্টুকে মারধর করা হয়েছে—এমন খবর পেয়ে দুপচাঁচিয়া পৌর সম্মিলিত ট্রাক চালক সমিতির সদস্য শাহ ফরিদ ও মুকুল হোসেন শ্রমিকদের নিয়ে তালোড়া রেলঘুমটিতে যান। সেখানে তাঁরা অপর পক্ষের শ্রমিকনেতা রিপনকে রড দিয়ে পেটান। এ সময় রিপন মাথায় আঘাত পেয়ে আহত হন। স্থানীয় শ্রমিকেরা রিপনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে দুপচাঁচিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে বগুড়ায় পাঠানো হয়। হামলার ঘটনার প্রতিবাদে তালোড়ার শ্রমিকেরা সকাল সোয়া ১০টার দিকে সড়ক অবরোধ করেন। পরে ১১টার দিকে শ্রমিক সংগঠনের নেতা ও পুলিশের হস্তক্ষেপে শ্রমিকেরা অবরোধ তুলে নেন।
বগুড়া জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন তালোড়া শাখার সভাপতি সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘কোনো কারণ ছাড়াই দুপচাঁচিয়ার শ্রমিকেরা রিপনের ওপর হামলা চালিয়েছেন। আমরা থানায় মামলা করব।’
দুপচাঁচিয়া পৌর সম্মিলিত ট্রাক চালক সমিতির সভাপতি আশরাফ আলী বলেন, ‘ঘটনার পরপরই আমরা গিয়ে আহত শ্রমিকনেতার চিকিৎসা খরচ দিতে চেয়েছি। সন্ধ্যায় উভয় পক্ষের শ্রমিকদের নিয়ে বসে বিষয়টির মীমাংসা করা হবে।’
দুপচাঁচিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোপাল চন্দ্র চক্রবর্তী বলেন, ঘটনার পরপরই পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছে। তবে এ ব্যাপারে কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ করেনি।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন