সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস নিয়ে বিরোধের জের ধরে চট্টগ্রাম নগরের কলেজিয়েট স্কুল ও সরকারি মুসলিম উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার দুপুরে নগরের আইস ফ্যাক্টরি রোডে কলেজিয়েট স্কুলের সামনে এই ঘটনা ঘটে। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি।
প্রত্যক্ষদর্শী, শিক্ষক ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গতকাল দুপুর ১২টার দিকে সরকারি মুসলিম উচ্চবিদ্যালয়ের অন্তত ৪০ জন শিক্ষার্থী কলেজিয়েট স্কুলের সামনে এসে এই বিদ্যালয়ের কয়েকজন ছাত্রকে মারধর করতে থাকে। এই সময় বিদ্যালয়ের ভেতর থেকে বের হয়ে অন্য শিক্ষার্থীরা মুসলিম উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্রদের ধাওয়া দিয়ে নয়জনকে ধরে ফেলে। পরে তাদের বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।
এরপর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক (মাউশি) অধিদপ্তর চট্টগ্রাম অঞ্চলের উপপরিচালক আজিজ উদ্দিন ও সদরঘাট থানা-পুলিশের উপস্থিতিতে ছাত্রদের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে অভিভাবকদের জিম্মায় তুলে দেওয়া হয়।
মাউশির উপপরিচালক আজিজ উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, ফেসবুকের একটি স্ট্যাটাস নিয়ে গত বৃহস্পতিবার নগরের হালিশহর এলাকার বিডিআর মাঠে কলেজিয়েট স্কুল ও মুসলিম উচ্চবিদ্যালয়ের কয়েকজন ছাত্রের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে মুসলিম উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্রদের ওপর হামলা করে।
কলেজিয়েট স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. গিয়াসউদ্দিন বলেন, মুসলিম উচ্চবিদ্যালয়ের নয় ছাত্রের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে অভিভাবকদের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
সরকারি মুসলিম উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. আবু তালেব বলেন, এই ধরনের ঘটনা যাতে আর না ঘটে, সে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0