রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লিতে গতকাল শনিবার অভিযান চালিয়ে অষ্টম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় সুমি আক্তার (৩০) নামের এক বাড়িওয়ালিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
ওই মাদ্রাসাছাত্রী (১৩) জানায়, ৫ ফেব্রুয়ারি সকালে বাড়ি থেকে মাদ্রাসায় পড়তে যায় সে। দুপুরের দিকে তার এক বান্ধবীর বাবা শহীদ শেখ বেড়ানোর কথা বলে তাকে প্রাইভেট কারে করে নিয়ে বের হন। গাড়িতে ওঠানোর পর তার (ছাত্রী) মুখে রুমাল ধরলে সে অচেতন হয়ে পড়ে। এরপর জ্ঞান ফিরলে সে দৌলতদিয়া যৌনপল্লির এক বাড়িতে থাকার বিষয়টি বুঝতে পারে। এর পর থেকে তাকে দিয়ে জোরপূর্বক অনৈতিক কাজ করানো হয়। শুক্রবার রাজবাড়ীর এক যুবক ওই বাড়িতে যান। তখন সে (ছাত্রী) ওই যুবকের কাছে তার (ছাত্রীর) বাড়িতে খবরটি পৌঁছে দিতে অনুরোধ করে। গতকাল দুপুরের দিকে খবর পেয়ে মেয়েটির মা ও স্বজনেরা গোয়ালন্দ ঘাট থানায় যান। এরপর থানার এসআই ফিরোজ আহম্মেদ, এএসআই আসাদুজ্জামানসহ পুলিশ সদস্যরা যৌনপল্লিতে অভিযান চালান।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন