পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলায় ধর্ষণ ও প্রতারণার শিকার হয়ে গত মঙ্গলবার এক এসএসসি পরীক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই রাতেই পুলিশ জড়িত থাকার অভিযোগে বিধান সরদারকে (৩৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে।
পুলিশ ও মেয়েটির পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সাচিয়া গ্রামের বিধান সরদারের (৩৫) সঙ্গে এক বছর আগে মুঠোফোনে ওই ছাত্রীর পরিচয় হয়। কাঠ ব্যবসায়ী বিধান নিজেকে সেনাসদস্য হিসেবে পরিচয় দিয়ে মেয়েটির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। গত সোমবার বিধান মেয়েটির মুঠোফোনে বিকাশের মাধ্যমে ৩০০ টাকা পাঠিয়ে দিয়ে তাঁর বাড়িতে আসতে বলেন। ওই দিন বিকেলে ওই ছাত্রী সাচিয়া গ্রামে এলে বিধান তাকে বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন। পরে মেয়েটি জানতে পারে বিধান বিবাহিত। এরপর সে মামার বাড়িতে ঘরের আড়ার সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।
সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আবদুল কাদের বেগ বলেন, বিধান পুলিশের কাছে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। মেয়ের মামা বাদী হয়ে ধর্ষণ ও আত্মহত্যা প্ররোচনার অভিযোগে থানায় মামলা করেছেন।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন