নরসিংদীতে পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ১

বিজ্ঞাপন

নরসিংদীর শিবপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আবদুর রাজ্জাক (৩৮) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে উপজেলার তেলিয়া শ্মশানঘাট-সংলগ্ন একটি কলাখেতে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। আজ শুক্রবার দুপুরে প্রেসনোট দিয়ে এ তথ্য জানায় পুলিশ।

পুলিশ বলছে, ঘটনাস্থল থেকে একটি একনলা বন্দুক, পাঁচটি গুলি, চারটি রামদা ও একটি তালা কাটার যন্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত রাজ্জাকের বাড়ি শিবপুর উপজেলার ধানুয়া গ্রামে। বাবার নাম রফিজ উদ্দিন।

পুলিশ বলছে, রাজ্জাকের বিরুদ্ধে নরসিংদীর বিভিন্ন থানায় ১টি হত্যা, ১২টি ডাকাতিসহ মোট ১৬টি মামলা রয়েছে।

পুলিশের ভাষ্য, রাজ্জাককে গতকাল সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার করে শিবপুর থানার পুলিশ। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে অস্ত্র ও সহযোগী ডাকাতদের বিষয়ে তথ্য দেন তিনি। তাঁর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, তাঁকে সঙ্গে নিয়ে রাতে অভিযানে যায় পুলিশ। রাত ১২টার দিকে তেলিয়া শ্মশানঘাট এলাকায় পৌঁছালে রাজ্জাককে ছিনিয়ে নিতে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন তাঁর সহযোগীরা। এ সময় ডাকাতদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধ হয়। ডাকাতদের ছোড়া গুলিতে রাজ্জাক গুলিবিদ্ধ হন। এ ঘটনায় শিবপুর থানার পুলিশের এক উপপরিদর্শক ও দুই কনস্টেবল আহত হন। আহত চারজনকে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাজ্জাককে মৃত ঘোষণা করেন।

শিবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মমিনুল ইসলাম বলেন, রাজ্জাকের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন