নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতার গাউছিয়া মার্কেট-সংলগ্ন বিসমিল্লাহ পেট্রলপাম্পের সামনে আশিয়ান ট্রান্সপোর্টের একটি বাসে দুর্বৃত্তদের দেওয়া আগুনে দুই ব্যক্তি দগ্ধ হয়েছেন। আজ বুধবার ভোররাত সাড়ে তিনটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধ ব্যক্তিরা হলেন বাসের চালকের সহকারী শাকিল (১৮) ও ইয়াসিন (২০)। আগুনে শাকিলের প্রায় সারা শরীর ও ইয়াসিনের মুখ ও হাত পুড়ে গেছে। তাঁদের উদ্ধার করে ভোর ছয়টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, শাকিলের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ঢাকা-ভুলতা সড়কপথে চলাচলকারী পুড়ে যাওয়া বাসটির চালক মো. জসিমউদ্দিনের ভাষ্য, সারা দিনের কাজের পর রাত সাড়ে ১০টার দিকে শাকিল ও অন্য গাড়ির চালকের সহকারী ইয়াসিন বাসে ঘুমাতে যান। রাত সাড়ে তিনটার দিকে বাসটিতে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। এ সময় বাসের মধ্যে ঘুমিয়ে থাকা শাকিল ও ইয়াসিন দগ্ধ হন।

জসিমউদ্দিনের ধারণা, বাসটিতে গান পাউডার দিয়ে আগুন দেওয়া হয়েছে। কারণ পেট্রলবোমা মেরে আগুন দিলে শব্দ হতো। কিন্তু আগুন লাগার সময় কোনো শব্দ হয়নি। এ ছাড়া খুব অল্প সময়ের মধ্যেই পুরো বাসটি পুড়ে গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে জেনেছেন—এমনটা দাবি করে জসিমউদ্দিন জানান, রাস্তার পাশে রাখা বাসটির সামনে একটি সিএনজি অটোরিকশা থামার পর বাসটিতে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। এরপর অটোরিকশাটি দ্রুত পালিয়ে যায়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল-১-এ শাহবাগ থানার অস্থায়ী পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (উপপরিদর্শক) মোজাম্মেল হক হাসপাতালে শাকিল ও ইয়াসিনের ভর্তির তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন