default-image

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে এক ব্যক্তি (৩৫) নিহত হয়েছেন। আজ শুক্রবার ভোররাত চারটার দিকে উপজেলার ইলুমদী আমবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ভোর পাঁচটায় আড়াইহাজার থানার পুলিশ নিহত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, গত বুধবার রাত ১২টায় আরমান নামের এক ব্যক্তি মোটরসাইকেলে করে তাঁর রূপগঞ্জের কর্মস্থল থেকে আড়াইহাজারের খাগকান্দায় ফিরছিলেন। আড়াইহাজার-জাঙ্গালিয়া সড়কের ইলুমদী এলাকায় সাত-আটজনের একটি দল সড়কে কলাগাছ ফেলে ওই মোটরসাইকেল আরোহীর হাত–মুখ বেঁধে মোটরসাইকেল ছিনতাই করে। নির্দিষ্ট সময়ে বাড়ি ফিরে না আসায় আরমানের পরিবারের লোকজন তাঁর আসা-যাওয়ার পথে খোঁজ করে ভোররাত চারটায় ইলুমদী এলাকায় দুজনকে আরমানের মোটরসাইকেল নিয়ে যেতে দেখেন। সেখানেই তাদের আটকের চেষ্টা করলে একজন পালিয়ে যায়। অপরজনকে আটক করে মারধর করা হলে সেখানেই ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। পরবর্তী সময়ে সেখান থেকেই হাত–মুখ বাঁধা অবস্থায় আরমানকে উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

ওসির ভাষ্য, ধারণা করা হচ্ছে, সাত থেকে আটজনের দলটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল। তারা সড়কে অন্য কোনো কাজে এসেছিল। মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের পর তারা সারা রাত সেখানে অবস্থান করেছে। ভোরে অন্য সদস্যরা সেখান থেকে চলে গেলেও মোটরসাইকেলের যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে দুজন সদস্য সেখান থেকে যেতে পারছিল না। এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে একটি মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি।

ইলুমদী এলাকার এক মুদি দোকানি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ভোরে মসজিদের মাইকে ঘোষণা করা হয় এলাকায় ডাকাত পড়েছে। পরে লোকজন গিয়ে এক ব্যক্তিকে মারধর করলে তিনি মারা যান।

ঘটনাস্থলে যাওয়া আড়াইহাজার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) পলাশ কান্তি রায় প্রথম আলোকে বলেন, লাশের মাথায় আঘাতের চিহ্ন আছে। শরীর কিছুটা ফুলে গেছে। ওই ব্যক্তির শরীরে কালো প্যান্ট ছাড়া কিছুই ছিল না। আঙুলের ছাপের মাধ্যমে ওই ব্যক্তির পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

ছিনতাইয়ের শিকার আরমান উপজেলার খাগকান্দা এলাকার আবদুস সামাদের ছেলে। তাঁর ভাই মাহবুবুর রহমান খাগকান্দা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি।

মন্তব্য পড়ুন 0