নিখোঁজের ১১ দিন পর তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

বিজ্ঞাপন

নরসিংদীর শিবপুর থেকে নিখোঁজের ১১ দিন পর এক স্কুলছাত্রের অর্ধগলিত লাশ বরিশাল থেকে উদ্ধার করেছে নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। শুক্রবার সকালে বরিশালের হিজলা উপজেলার দুর্গম চরাঞ্চলে অভিযান চালিয়ে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

লাশ উদ্ধার হওয়া ওই শিশুর নাম সিয়াম (৮)। সে শিবপুর উপজেলার কারারচরের বিসিক শিল্পনগরী এলাকার খাবার হোটেল ব্যবসায়ী হাফেজ নূর উদ্দিনের ছেলে। পলাশ উপজেলার দড়িচর এলাকায় আল সাফা কিন্ডারগার্টেনের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল সিয়াম। পুলিশ বলছে, ওই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে নিহত শিশুর দূর সম্পর্কের মামা সাফায়াত হোসেনকে আটক করা হয়েছে।

সিয়ামের পরিবার জানায়, ২ জুন সন্ধ্যায় বাড়ির সামনে থেকে নিখোঁজ হয় সিয়াম। ওই দিন রাতেই অপহরণকারীরা তাঁর মা লাকি আক্তারের মোবাইলে ফোন করে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ চায়। কিন্তু অপহরণকারীরা কোনো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বা বিকাশ নম্বর না দেওয়ায় মুক্তিপণের টাকা পাঠানো সম্ভব হয়নি। নিখোঁজের দুদিন পর অপহরণকারীরা বিকাশ নম্বর দিলে ৩০ হাজার টাকা পাঠানো হয়।

নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক রুপণ কুমার সরকার বলেন, শিশু সিয়ামকে অপহরণের পর হত্যার ঘটনায় সাফায়াত হোসেনকে আটক করা হয়েছে। পরে তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বরিশাল থেকে সিয়ামের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। সিয়ামের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন