গোপালগঞ্জে ভ্যানসহ চার দিন ধরে নিখোঁজ চালক মো. ফেরদৌস মোল্লার (২৫) পরনের লুঙ্গির অর্ধেক অংশ ও একটি রক্তমাখা প্লাস্টিকের বস্তা উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল নয়টার দিকে টুঙ্গিপাড়া উপজেলার বর্ণি বাঁওড় এলাকা থেকে এগুলো উদ্ধারকরা হয়।
ভ্যানচালক ফেরদৌস উপজেলার গিমাডাঙ্গা পশ্চিমপাড়া মহল্লার মো. আহাদ আলী মোল্লার ছেলে। তিনি বিবাহিত। তাঁর ফারজান নামের চার বছরের একটি ছেলে রয়েছে।
নিখোঁজ ভ্যানচালকের বড় ভাই শামীম মোল্লা জানান, গত সোমবার সন্ধ্যায় কাঁচামাল বিক্রেতা গিমাডাঙ্গা পশ্চিমপাড়া মহল্লার লালন ফকির গোপালগঞ্জে মাল আনার জন্য ফেরদৌসকে ভাড়া করেন। রাত ১০টার দিকে বাড়ি থেকে ফোন করা হলে ফেরদৌসের মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। এর পর থেকে ফেরদৌস নিখোঁজ রয়েছেন।
এ ঘটনায় মঙ্গলবার ফেরদৌসের বাবা মো. আহাদ আলী মোল্লা টুঙ্গিপাড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।
শামীম আরও জানান, গতকাল সকাল নয়টার দিকে বর্ণি বাঁওড় থেকে ফেরদৌসের পরনের লুঙ্গি ছেঁড়া অবস্থায় ও একটি রক্তমাখা প্লাস্টিকের বস্তা উদ্ধার করা হয়।
টুঙ্গিপাড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) প্রকাশ বোস বলেন, নিখোঁজ ভ্যানচালককে উদ্ধারের জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন