মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পাচারের সময় কক্সবাজারের টেকনাফের নাফ নদীতে পাচারকারীদের ফেলে যাওয়া একটি নৌকা থেকে ৩ লাখ ৮০ হাজার ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে না পারলেও বহনকারী নৌকাটি জব্দ করা হয়েছে। 

গতকাল শনিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার হ্নীলার ইউনিয়নের দমদমিয়ার নাফ নদীর জলিলের দিয়া-সংলগ্ন এলাকা থেকে ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।
টেকনাফ-২ বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর আবু রাসেল সিদ্দিকী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়। মেজর আবু রাসেল সিদ্দিকী বলেন, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান জলিলের দিয়ার উত্তর পাশে নাফ নদী দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করবে বলে জানতে পারে বিজিবি। এ তথ্যের ভিত্তিতে ২ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. আবুজার আল জাহিদের নেতৃত্বে রাত সাড়ে নয়টার দিকে ওই এলাকায় গিয়ে ওত পেতে থাকে। পরে রাত ১১টার দিকে টহল দল কয়েকজন লোকসহ একটি নৌকা নিয়ে সীমান্ত অতিক্রম করে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আসতে দেখে তাদের চ্যালেঞ্জ করে।
আবু রাসেল সিদ্দিকী বলেন, বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে ইয়াবা বহনকারীরা নৌকা থেকে নদীতে লাফ দিয়ে সাঁতরিয়ে মিয়ানমারে চলে যাওয়া। এ কারণে তাদের কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। পরবর্তী সময়ে টহলদল ইয়াবা বহনকারীদের ফেলে যাওয়া নৌকাটিতে তল্লাশি করলে তিনটি বস্তা ভর্তি ৩ লাখ ৮০ হাজার ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়। এর আনুমানিক মূল্য ১১ কোটি ৪০ লাখ টাকা।
মেজর আবু রাসেল সিদ্দিকী বলেন, উদ্ধার করা ইয়াবা বড়িগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে; যা পরবর্তীকালে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি ও স্থানীয় প্রশাসনের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন