default-image

ব্যবসার জন্য টাকা না দেওয়ায় পথচারীদের সামনে ছেলে তাঁর বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা সদরের আলমনগর সড়কে নৃশংস এই হত্যাকাণ্ড হয়েছে বলে অভিযোগে বলা হয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সদস্য আমির হোসেন কয়েক বছর ধরে উপজেলা সদরের পশ্চিম পাড়ায় বাড়ি কিনে স্থায়ীভাবে বসবাস করে আসছিলেন। সম্প্রতি তিনি বিদেশ থেকে দেশে আসেন। তাঁর স্নাতকোত্তর পাস করা বড় ছেলে আরাফাত ইসলাম (২৪) বেকার। ব্যবসা করার জন্য বাবার কাছে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে আসছিলেন তিনি। কিন্তু তাঁর বাবা কোনোভাবেই টাকা দিতে রাজি হচ্ছিলেন না। শুক্রবার সকালে আরাফাত তাঁর বাবার কাছে ফের টাকা চান। বাবা আমির হোসেন টাকা দিতে পারবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন। এরপর আমির বাড়ি থেকে বের হয়ে আলমনগর সড়ক দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। ক্ষুব্ধ আরাফাত ঘর থেকে দা নিয়ে প্রকাশ্যে পথচারীদের সামনেই পেছন থেকে তাঁর বাবার মাথায় এলোপাতাড়ি কোপাতে শুরু করেন। এতে আমির হোসেন রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে যান। পথচারীরা উদ্ধার করে নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রণজিৎ রায় প্রথম আলোকে বলেন, ‘এটি অপ্রত্যাশিত ও দুঃখজনক একটি ঘটনা। প্রকাশ্যে এক বাবাকে তাঁর ছেলে কুপিয়ে মারল, অথচ একটি লোক এগিয়ে এল না। ঘটনায় জড়িত ওই ছেলেকে গ্রেপ্তারে পুলিশের একাধিক দল বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালাচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন