পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় পিটিয়ে হত্যা

বিজ্ঞাপন
default-image

বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলায় পাওনা টাকা ফেরত চাওয়াকে কেন্দ্রে করে রুবেল হাওলাদার (২৫) নামের এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। আজ শনিবার দুপুরে নিহতের ময়নাতদন্ত বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে সম্পন্ন হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের মা শিরিনা বেগম বাদী হয়ে চিতলমারী থানায় রেজাউল ফকিরসহ ১০/১২ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন। তবে পুলিশ এই ঘটনায় জড়িত কাউকে এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

এর আগে ২ মে রাতে চিতলমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের খিলিগাতি বাজার এলাকায় ব্যবসায়ী রুবেল হাওলাদারকে প্রতিপক্ষ রেজাউল ফকির ও তাঁর ১০/১২ সহযোগী মারপিট করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। সেদিন থেকে রুবেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

নিহত রুবেল হাওলাদার চিতলমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের খিলিগাতি গ্রামের বাসিন্দা। তিনি স্থানীয় খিলিগাতি বাজারে মাছের খাবারের ব্যবসায়ী ছিলেন।

নিহতের বড় ভাই রবিউল হাওলাদার অভিযোগ করেন, ‘প্রতিবেশী রেজাউল ফকিরের কাছে আমার ছোট ভাই রুবেল ব্যবসার ১৮ হাজার টাকা পেতেন। সেই পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় রেজাউল ফকির ক্ষুব্ধ হয়ে তাঁর লোকজন নিয়ে প্রকাশ্যে মারপিট করে রুবেলকে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করেন।’

চিতলমারী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. গিয়াস উদ্দীন বলেন, পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে রেজাউল ফকিরের নেতৃত্বে একদল লোক খিলিগাতি বাজারের মাছের খাবার বিক্রেতা রুবেল হাওলাদারকে মারপিট করে আহত করেন। তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন তাঁর স্বজনেরা। সেখান থেকে গতকাল শুক্রবার ঢাকায় নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। তাঁর মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতে চিহ্ন পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় মামলা হয়েছে। জড়িতদের ধরতে পুলিশ চেষ্টা করছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন