পানির ট্যাংকে পাওয়া গেল নিখোঁজ কিশোরের লাশ

বিজ্ঞাপন
default-image

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলায় নিখোঁজের চার দিন পর কিশোরের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার ভোরে উপজেলার সাধারচর ইউনিয়নের একটি বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত পানির ট্যাংক থেকে তার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়।

লাশ উদ্ধার হওয়া ওই কিশোরের নাম রিফাত মিয়া (১৬)। সে শিবপুরের সাধারচর ইউনিয়নের দক্ষিণ সাধারচর গ্রামের রাজমিস্ত্রি শুক্কুর আলীর ছেলে।

নিহত কিশোরের স্বজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রেমঘটিত দ্বন্দ্বের জেরে রিফাত নিখোঁজ হয় গত শনিবার রাতে। গত সোমবার দুপুরে তার মা রুনা বেগম ছেলে নিখোঁজের বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। এরপরই ঘটনার তদন্তে নামে শিবপুর মডেল থানার পুলিশ। তদন্তের দায়িত্বে থাকা উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মারুফ সন্দেহভাজন আশরাফুল নামের এক কিশোরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেন। পরে তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, রিফাতের অর্ধগলিত লাশ দক্ষিণ সাধারচর উচ্চবিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত পানির ট্যাংক থেকে উদ্ধার করা হয়।

শিবপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, নিহত রিফাতের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে রাসেল ও আশরাফুল নামের দুজনকে আটক করা হয়েছে। প্রেমসংক্রান্ত বিরোধের জেরে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন