বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

চিকিৎসার জন্য টাঙ্গাইল জেলা কারাগার থেকে কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে তাঁকে স্থানান্তর করা হয়েছিল। সেখান থেকে গতকাল শুক্রবার রাতে তাঁকে মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠানো হয়। আজ মিন্টু মিয়া পালানোর পর বেলা ১২টার দিকে কারাধ্যক্ষ মাহবুবুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, তিনি গাজীপুরে শ্বশুরবাড়িতে গেছেন। তাঁর ছেলেদের সঙ্গে দেখা করতে মিন্টু মিয়া গাজীপুরে গেছেন। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তিনি শ্বশুরবাড়িতেও এখন নেই। শ্বশুরকে বলে গিয়েছেন যে তিনি টাঙ্গাইলে ফিরে যাবেন।

তবে বেলা দুইটার দিকে কারাধ্যক্ষ জানান, বউ ও শ্বশুরের সঙ্গে কথা বলেই মিন্টু মিয়ার খোঁজ পাওয়া যায়। পরে তাঁকে আবার গ্রেপ্তার করা হয়।

মাহবুবুল ইসলাম বলেন, মিন্টুর সঙ্গে তিনজন কারারক্ষী ছিলেন। তাঁদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। মিন্টু কীভাবে পালালেন, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন