নোয়াখালীর শহরের উজ্জ্বলপুর এলাকায় পিকেটারের ছোড়া ইটের আঘাতে শামসুন নাহার (৩৭) নামের এক শিক্ষিকার মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ঢাকার আগারগাঁওয়ের তাওহীদ ল্যাবরেটরি স্কুলে শিক্ষকতা করতেন শামসুন নাহার। লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চর পোড়াগাছা এলাকায় তাঁর গ্রামের বাড়ি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, একটি কাভার্ড ভ্যানে করে শামসুন নাহার তাঁর স্বামী শাহজাহান সিরাজের সঙ্গে ঢাকা থেকে রামগতি যাচ্ছিলেন। সকাল পৌনে ১০টার দিকে ক্যাভার্ড ভ্যানটি উজ্জ্বলপুর পৌঁছালে অজ্ঞাত এক পিকেটার এটি লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়ে। একপর্যায়ে একটি ইটের খণ্ড শামসুন নাহারের মাথায় এসে লাগে। সঙ্গে সঙ্গে তিনি জ্ঞান হারান। তাঁকে নোয়াখালীর আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসা কর্মকর্তা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী জানান, শামসুন নাহারকে হাসপাতালে মৃত অবস্থায় আনা হয়েছে। তাঁর মাথায় গুরুতর জখমের চিহ্ন ছিল।

ওসি আনোয়ার জানান, শামসুন নাহারের লাশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। পিকেটারকে ধরেত অভিযানে নেমেছে পুলিশ। এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন