মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলায় আজ মঙ্গলবার পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শাহিন নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। এতে পুলিশের এক কনস্টেবল আহত হন। আজ বেলা দেড়টার দিকে বাগড়া ইউনিয়নের রুদ্রপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, শাহিন পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। তাঁর বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতিসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

মুন্সিগঞ্জের পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার বলেন, গোপন খবরের ভিত্তিতে আজ বাগড়া পুলিশ ফাঁড়ির চার সদস্যের একটি দল শাহিনকে গ্রেপ্তার করতে রুদ্রপাড়া এলাকায় যায়। টের পেয়ে শাহিন ও তাঁর সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। এ সময় কনস্টেবল আলামিন আহত হন। আলামিনের সঙ্গে থাকা রাইফেলটি নিয়ে পালিয়ে যান শাহিন ও তাঁর দলবল। তাঁরা একটি বাড়িতে আশ্রয় নেন। এর কিছু সময় পরে পুলিশ সদস্যরা ওই বাড়িটি ঘিরে ফেলেন। এ সময় পুলিশের সঙ্গে শাহিন ও তাঁর সহযোগীদের গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এতে শাহিন গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান এবং তাঁর সহযোগীরা পালিয়ে যান। পরে সেখান থেকে কনস্টেবল আলামিনের ছিনিয়ে নেওয়া রাইফেলটি উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন