ফরিদপুরে আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

বিজ্ঞাপন
default-image

ফরিদপুরে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনা ঘটেছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে ফরিদপুর শহরের কবি জসীমউদদীন সড়কে আলীপুর গোরস্তানসংলগ্ন লোটাসের মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ওই আওয়ামী লীগ নেতার নাম জাহিদ ব্যাপারী (৪৯)। তিনি একজন আইনজীবী এবং জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়কসম্পাদক। তিনি ফরিদপুর পৌরসভার অম্বিকাপুর বাজার এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে। চার ভাই ও এক বোনের মধ্যে তিনি ছোট। তাঁর এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

জাহিদ ব্যাপারীর পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, আজ সকালে তিনি একটি রিকশায় আদালত পাড়ায় যাচ্ছিলেন। লোটাসের মোড় এলাকায় এলে টিয়া রঙের একটি মোটরসাইকেল ওই রিকশার গতি রোধ করে। মোটরসাইকেলে তিনজন আরোহী ছিলেন। ওই তিন আরোহী ধারালো অস্ত্র দিয়ে জাহিদের মাথা ও পায়ে কুপিয়ে এবং লাঠি দিয়ে তাঁকে বেধড়ক পিটিয়ে জখম করেন। এ সময় জাহিদ ব্যাপারীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যান। পরে এলাকাবাসী জাহিদ ব্যাপারীকে উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে তাঁর অস্ত্রোপচার করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোরশেদ আলম বলেন, এ ঘটনায় আজ দুপুর পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি। তবে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে।

এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে ফরিদপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুর রাজ্জাক বলেন, শান্ত ফরিদপুরকে অশান্ত করার পাঁয়তারা হিসেবে এ ঘটনা ঘটানো হতে পারে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন