default-image

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বন্ধুত্ব। এরপর কথাবার্তা চালাচালি। একসময় দেখা করার দিন ঠিক হয়। সেই দিনে পূর্বপরিকল্পনামতো নির্ধারিত রেস্তোরাঁয় হাজির হয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে এক কিশোরী (১৫) অভিযোগ করেছে।

ওই কিশোরী গতকাল রোববার ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে। অভিযোগে সে বলেছে, ৯ মার্চ বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার একটি রেস্তোরাঁয় এ ঘটনা ঘটেছে। সে আল আমিন সিকদার (২১) নামের একজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছে।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক শাহাদাৎ হোসেন কিশোরীর লিখিত অভিযোগ করার খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, কিশোরীর অভিযোগ তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে আল আমিনকে এখনো পাওয়া যায়নি।

কিশোরীর অভিযোগে উল্লেখ করেছে, সম্প্রতি ফেসবুকে আল আমিন সিকদারের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। ৯ মার্চ বিকেলে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে শহরের একটি রেস্তোরাঁয় গেলে তাকে একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করেন আল আমিন। তিনি চিৎকার করলে তাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। এরপর তাকে ওই রেস্তোরাঁ থেকে বের করে দেন আল আমিন। পরে কিশোরী আল আমিনের বাড়ির ঠিকানা সংগ্রহ করে সদর উপজেলার ফতুল্লার দেলপাড়া ব্যাংক কলোনি এলাকার বাড়িতে যায়। পরিবারের সদস্যদের ঘটনাটি বললে তাঁরা কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেন।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক আরও বলেন, আল আমিনকে আটকের চেষ্টা চলছে। কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রক্রিয়া চলছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন